বাসায় ঢুকে সাত বছরের শিশুকে ধর্ষণের’ পর হত্যার অভিযোগ

চট্টগ্রামে বাসায় ঢুকে সাত বছরের শিশুকে ‘ধর্ষণের’ পর শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার সকালে চট্টগ্রাম নগরের চান্দগাঁও থানার মৌলভী পুকুর পাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত তানহা আক্তার মারিয়া নোয়াখালীর রামগতি উপজেলার আলেকজান্ডার রামদয়াল গ্রামের মো. বাকের হোসেনের মেয়ে। সে স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণিতে পড়তো। তার মা নাজমা আক্তার পোশাক কারখানার কর্মী।
বাকের হোসেন জানান, তার স্ত্রী সকাল সাড়ে সাতটায় কর্মস্থলে চলে যান। মেয়েকে বাসায় রেখে পৌনে আটটার দিকে তিনিও বাসা থেকে বের হন। সকাল ৯টার দিকে প্রতিবেশী এক নারী খবর দেন বাসায় তার মেয়ের মরদেহ পাওয়া গেছে। বাসায় গিয়ে দেখেন, বিছানায় পড়ে ছিল মেয়ের মরদেহ। গলায়, হাত ও পায়ে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

চান্দগাঁও থানার এসআই রিয়াদুস সালেহিন বলেন, খবর পেয়ে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শিশুটির মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে ধর্ষণের বিষয়টি জানা যাবে। আর স্থানীয়দের সহায়তায় এক যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শিশুটিকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন।