বাণিজ্য জোরদারে আগ্রহী বাংলাদেশ-ইইউ

বাণিজ্য জোরদারে নিজেদের আগ্রহ পুনর্ব্যক্ত করেছে দেশের শীর্ষ বাণিজ্য সংগঠন দ্য ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফবিসিসিআই) এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)।

সোমবার (১৬ অক্টোবর) রাজধানীর গুলশানে এফবিসিসিআই‘র কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে এ আগ্রহের কথা জানান বাংলাদেশে নিযুক্ত ইইউ’র রাষ্ট্রদূত চার্লস হোয়াইটলি এবং এফবিসিসিআই’র সভাপতি মাহবুবুল আলম।

করোনাভাইরাস মহামারিতে ভ্যাকসিনসহ বাংলাদেশে যাবতীয় সহযোগিতার জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এফবিসিসিআই’র সভাপতি। ইউরোপীয় ইউনিয়নে বাংলাদেশকে দেওয়া জিএসপি সুবিধা তিন বছর বাড়িয়ে ২০২৯ সাল পর্যন্ত করায় ইইউকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

এ বছর ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে বাংলাদেশের কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০তম বার্ষিকী উদযাপন করা হচ্ছে, যা দুই অঞ্চলের মধ্যে বন্ধুত্বের স্থায়ী অঙ্গীকারের উৎকৃষ্ট উদাহরণ।

মাহবুবুল আলম ।

বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান রপ্তানি গন্তব্য ইউরোপীয় ইউনিয়নের তাৎপর্য তুলে ধরে মাহবুবুল আলম আরও বলেন, ২০২২-২৩ অর্থবছরে আমাদের মোট রপ্তানির ৪৫ শতাংশ গেছে ইউরোপে। তৈরি পোশাক ও হিমায়িত খাদ্য এর মধ্যে অন্যতম। বাণিজ্যিক ক্ষেত্রে ইউরোপ আমাদের গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার হয়ে উঠেছে।

বাংলাদেশের জলবায়ুবিষয়ক কর্মকাণ্ড এবং পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তি খাতে বিনিয়োগে ইউরোপীয় ইউনিয়নের ভূমিকা ভূয়সী প্রশংসা করেন এফবিসিসিআই’র সভাপতি। ইইউ’র এই সহায়তা জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা, আধুনিক অবকাঠামো, নবায়নযোগ্য জ্বালানি, সরবরাহ চেইন, উন্নত জল ব্যবস্থাপনা, মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা, শিল্পদূষণ নিয়ন্ত্রণ এবং খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

প্রস্তাবিত কার্বন বর্ডার অ্যাডজাস্টমেন্ট মেকানিজমে (সিবিএএম) বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল দেশগুলোকে জিএসপি প্লাস মর্যাদা দিতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতি আহ্বান জনান।

মাহবুবুল আলম।

রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রতি ইইউ’র মানবিক সহায়তার প্রশংসা করে মাহবুবুল আলম মিয়ানমারে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রত্যাবাসনে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সহায়তা কামনা করেন।

এফবিসিসিআই’র সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ায় মাহবুবুল আলমকে শুভেচ্ছা জানান ইইউ’র রাষ্ট্রদূত চার্লস হোয়াইটলি। তিনি বাংলাদেশ ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের মধ্যে সম্পর্ক বৃদ্ধিতে ইইউ’র অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেন।

তরুণদের দক্ষতা উন্নয়ন এবং জলবায়ু পরিবর্তনজনিত সমস্যা মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকারের সাথে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সক্রিয় সহযোগিতার কথাও উল্লেখ করেন ইইউ রাষ্ট্রদূত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *