যুক্তরাষ্ট্রের জ্বালানি প্রতিষ্ঠান এক্সিলারেট এনার্জির কাছ থেকে দৈনিক আরও ৫০ কোটি ঘনফুট হারে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) কিনছে সরকার। দীর্ঘমেয়াদি চুক্তির আওতায় ২০২৬ সাল থেকে জাতীয় গ্রিডে এই গ্যাস যুক্ত হবে।

বুধবার (৯ নভেম্বর) রাতে রাজধানীর একটি হোটেলে এ বিষয়ে প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে আনুষ্ঠানিক চুক্তি সই করেছে বাংলাদেশ তেল, গ্যাস ও খনিজ সম্পদ করপোরেশন (পেট্রোবাংলা)।

রাষ্ট্রীয় কোম্পানিটি জানায়, ২০২৬ ও ২০২৭ সালে জাতীয় গ্রিডে দশমিক ৮৫ মিলিয়ন টন এলএনজি সরবরাহ করা হবে। আর ২০২৮ থেকে ২০৪০ সাল পর্যন্ত যুক্ত হবে বছরে ১ মিলিয়ন টন হারে।

অনুষ্ঠানে মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাস বলেন, বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বাণিজ্য সম্পর্ক উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে এই চুক্তি।

এসময় বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, দেশের বিদ্যুৎ-জ্বালানি খাতের ৬০ শতাংশ ব্যবসা মার্কিন কোম্পানিগুলোর দখলে। সামনে যা আরও এগিয়ে নেয়ার আশা করেন তিনি।

চুক্তি সই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বলেন, বর্তমান সরকার বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে ব্যাপক উন্নয়ন করেছে। উন্নয়নের এই ধারা ব্যাহত করতে রাজনৈতিক সহিংসতা চালানো হচ্ছে।

প্রতিপক্ষ রাজনৈতিক দলের এই সহিংসতার প্রতিবাদ জানাতে যুক্তরাষ্ট্রের বিনিয়োগকারীসহ ব্যবসায়ীদের আহ্বান জানান তিনি।