কর অব্যাহতির অর্থ শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করবে সিএমএসএফ

শেয়ারবাজারকে বিনিয়োগবান্ধব ও স্থিতিশীল করার লক্ষ্যে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) গঠন করা ক্যাপিটাল মার্কেট স্ট্যাবিলাইজেশন ফান্ড (সিএমএসএফ) কর অব্যাহতির জন্য জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) কাছে আবেদন করেছে।

এনবিআর কর অব্যাহতি দিলে যে অর্থ বাঁচবে তা শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করবে বলে সিএমএসএফ। প্রতিষ্ঠানটি সূত্রে এই জানা গেছে।

সম্প্রতি এনবিআর চেয়ারম্যান বরাবরে প্রেরিকে চিঠিতে সিএমএসএফ বলেছে, তালিকাভুক্ত সিকিউরিটিজ ইস্যুকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছ থেকে তিন বছর ও তৎপূর্বকার অদাবিকৃত এবং অবণ্টিত ক্যাশ বা স্টক ডিভিডেন্ড অপরিশোধিত পাবলিক সাবস্ক্রিপশনের অর্থ এবং অবরাদ্দকৃত রাইটস শেয়ার স্থানান্তর করে বিনিয়োগকারীদের পক্ষে ক্যাশ ও স্টকের হেফাজত হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে। ফান্ডে জমাকৃত ক্যাশ টাকা এবং স্টক যেকোনো সময় শেয়ারহোল্ডারদের পরিশোধপূর্বক তাদের দাবি নিষ্পত্তি করা হচ্ছে।

এই ফান্ড থেকে আসা আয় শেয়ারবাজারের স্থিতিশীলতা বজায় রাখার পাশাপাশি বাজারের উন্নয়নের স্বার্থে তহবিলে জমা করা হচ্ছে। বিএসইসির নির্দেশনা অনুযায়ী বিনিয়োগকারীদের দাবি নিষ্পত্তির সঙ্গে সঙ্গে শেয়ারবাজারের স্থিতিশীলতা আনতে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে, যার কোনোটিই মুনাফা অর্জনের উদ্দেশ্যে নয়।

সিএমএসএফ

চিঠিতে সিএমএসএফ বলেছে, আয়কর আইন ২০২৩-এর ষষ্ঠ তফসিলের অংশ-১-এর ধারা ১০-এর দ্বারা বিএসইসি কর্তৃক স্বীকৃত মিউচুয়াল ফান্ড, বিকল্প বিনিয়োগ তহবিল, রিয়েল এস্টেট ইনভেস্টমেন্ট ট্রাস্ট এবং এক্সচেঞ্জ ফান্ডের থেকে অর্জিত যেকোনো আয়কে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। তদ্রৃপ বিএসইসির একটি অলাভজনক অঙ্গপ্রতিষ্ঠান হওয়ার সুবাদে সিএমএসএফকেও কর অব্যাহতি দিলে দেশের শেয়ারবাজারের উন্নয়নে এটি সহায়ক ভূমিকা পালন করতে পারবে।

সিএমএসএফের তথ্য অনুযায়ী, গত ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মোট ১৩২ কোটি ৩৮ লাখ টাকা দাবি নিষ্পত্তি হয়েছে। ৭০টি ইস্যুয়ার কোম্পানির এক হাজার ৫২৫ জন বিনিয়োগকারী এ অর্থ পেয়েছেন। এর মধ্যে প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ারসংখ্যার পরিমাণ এক কোটি ৪০ লাখ ৫৩ হাজার ৫৯৮ এবং স্টক ডিভিডেন্ডের বিপরীতে ছয় লাখ ৩৯ হাজার ৬২২ শেয়ার নিষ্পত্তি করা হয়েছে। প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ারের বাজারমূল্য ১১৩ কোটি এবং স্টক ডিভিডেন্ডের বাজারমূল্য ১৬ কোটি ৩৬ লাখ টাকা। পাশাপাশি ক্যাশ ডিভিডেন্ডের তিন কোটি দুই লাখ টাকা নিষ্পত্তি করা হয়েছে।

সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, সিএমএসএফের ফান্ডের আকার এক হাজার ২৭০ কোটি টাকায় দাঁড়িয়েছে। এর মধ্যে বিনিয়োগকারীদের অবণ্টিত ও দাবিহীন ক্যাশ ডিভিডেন্ডের ৭১০ কোটি টাকা। আর বোনাস ও রাইট শেয়ারের মূল্য প্রায় ৫৬০ কোটি টাকা। গত বছর এই ফান্ডের পরিচালন ব্যয় মিটিয়ে আরও ৯ কোটি টাকা যুক্ত করা হয়েছে। এই বছর তার চেয়েও বেশি টাকা এই ফান্ডে যুক্ত হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *