প্রক্রিয়াজাত খাদ্যের আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী শুরু

দেশের কৃষি প্রক্রিয়াজাত খাদ্যপণ্যকে বিশ্বদরবারে তুলে ধরতে আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে নবম আন্তর্জাতিক প্রক্রিয়াজাত খাদ্যপণ্য মেলা বা বাপা ফুডপ্রো ইন্টারন্যাশনাল এক্সপো। বাংলাদেশ এগ্রো প্রসেসরস অ্যাসোসিয়েশন (বাপা) ও রেইনবো এক্সিবিশন অ্যান্ড ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট সার্ভিসের (রিমন) উদ্যোগে রাজধানীর আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) তিন দিনের এ মেলা চলবে শনিবার পর্যন্ত।

মঙ্গলবার রাজধানীর পল্টনে ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরাম মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান মেলা কমিটির চেয়ারপারসন এবং প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী আহসান খান চৌধুরী।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, মেলার উদ্বোধন করবেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন। মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টায় শুরু হয়ে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। মেলায় প্রদর্শনী ছাড়াও কারিগরি সেশনে দেশি-বিদেশি বিশেষজ্ঞরা উপস্থিত থাকবেন। এতে বাংলাদেশের পাশাপাশি ভারত, থাইল্যান্ড, দক্ষিণ কোরিয়া, তাইওয়ান, চীন, জার্মানি, সিঙ্গাপুর, জাপান, নেদারল্যান্ডস, তুরস্ক, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, বেলজিয়াম, সুইজারল্যান্ড, ইতালি, কানাডা, ফ্রান্স, ডেনমার্ক, পোল্যান্ড, শ্রীলঙ্কাসহ প্রায় ২০টি দেশ থেকে দুই শতাধিক প্রতিষ্ঠান নিজেদের পণ্য এবং সেবা প্রদর্শন করবে।

এ মেলার সঙ্গে ১১তম এগ্রো বাংলাদেশ এক্সপো এবং ইনডিয়েন্ট এক্সপো নামে আরও দুটি মেলা অনুষ্ঠিত হবে। ২০১৫ সাল থেকে এসব মেলার আয়োজন করে আসছে বাপা।

দেশের প্রক্রিয়াজাত খাদ্য বিশ্বের ১৪০টিরও বেশি দেশে পণ্য রপ্তানি করছে। ২০২৫ সালের মধ্যে এই রপ্তানির পরিমাণ দুই বিলিয়ন ডলারে উন্নীত করার চেষ্টা চলছে।

আহসান খান চৌধুরী 

খাদ্যের গুণগত এবং পুষ্টিমান নিশ্চিতকরণে বাপা কাজ করছে বলে জানান সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক মো. ইকতাদুল হক। তিনি বলেন, অভ্যন্তরীণ বাজারে খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ খাতের বিকাশ নিশ্চিত করার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক মানের খাদ্যপণ্য প্রস্তুত এবং রপ্তানির বিষয়ে কাজ করছেন তারা।

সংবাদ সম্মেলনে রেইনবো এক্সিবিশন অ্যান্ড ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট সার্ভিসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক চানমোহন সাহা, বাপার কার্যনির্বাহী কমিটির সহসভাপতি আব্দুল মাজেদ, সদস্য নাজমুল হক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *