সাধারণ শেয়ার হোল্ডারদের জন্য নগদ ১১ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি ডরিন পাওয়ার জেনারেশন্স অ্যান্ড সিস্টেমস লিমিটেড।

জুলাই ২০২২ থেকে ৩০ জুন ২০২৩ সমাপ্ত অর্থবছরের নিরিক্ষীত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে স্পন্সর ও ডিরেক্টরদের বাদ দিয়ে কেবল সাধারণ শেয়ার হোল্ডারদের জন্য নগদ লভ্যাংশ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।
গতকাল (বৃহস্পতিবার) কোম্পানির পর্ষদ সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কোম্পানি সচিব মোহাম্মদ আমজাদ শাকিল। তিনি বলেন, ডলারের দাম বাড়ায় বিদায়ী বছরের মুনাফা কমেছে। এ কারণে বিনিয়োগকারীরাও মুনাফা কম পাচ্ছেন।

কোম্পানির তথ্য মতে, ৩০ জুন সমাপ্ত বছরে কোম্পানিটির কর-পরবর্তী মুনাফা হয়েছে ৬৪ কোটি ৪৭ লাখ ৮৩ হাজার ২৯১ টাকা। যাতে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) দাঁড়ায় ৩ টাকা ৫৬ পয়সা। সেখান থেকে কোম্পানির ১৮ কোটি ১১ লাখ ১৮ হাজার ৯০২টি শেয়ারের মধ্যে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের ১১ শতাংশ করে অর্থাৎ ১ টাকা ১০ পয়সা করে লভ্যাংশ দেওয়া হবে।

এর আগের বছর ২০২২ সালে শেয়ার প্রতি আয় হয়েছিল ৯ টাকা ২১ পয়সা। সেখান থেকে শেয়ার হোল্ডারদের ৩০ শতাংশ লভ্যাংশ দেওয়া হয়েছিল। মুনাফা কমার বছরে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৫০ টাকা ৪৭ পয়সা।

পর্ষদ ঘোষিত লভ্যাংশ শেয়ারহোল্ডারদের সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য কোম্পানিটির বার্ষিক সাধারণ সভার (এজিএম) দিন নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ৭ ডিসেম্বর। কোম্পানির ১৬তম এজিএম ওইদিন বেলা ১১টায় ডিজিটাল প্লাটফর্মে অনুষ্ঠিত হবে। তার জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৯ নভেম্বর।

২০১৬ সালে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের তালিকাভুক্ত কোম্পানিটির শেয়ার বৃহস্পতিবার সর্বশেষ লেনদেন হয়েছে ৬১ টাকায়। সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে রয়েছে কোম্পানির ৩৩ দশমিক ৩৯ শতাংশ শেয়ার। আর বাকি ৬৬ দশমিক ৬১ শতাংশ শেয়ার রয়েছে উদ্যোক্তা-পরিচালকদের হাতে।